প্রোডাক্টের তালিকা কিভাবে বাড়াবেন
  • Save
E-commerce

প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফি: বাজেটের মধ্যে কীভাবে ফটো শুট করবেন (DIY)

আপনি যদি একজন ব্যবসায়ী হোন আর আপনার একটি দোকান থাকে তবে সেখানে নানান ধরনের ক্রেতা আসেন। তারা আপনার পণ্য হাতে নিয়ে যাচাই বাছাই করে দেখেন। নেড়েচেড়ে দেখে তবেই তারা সিদ্ধান্ত নেন আপনার পণ্য কিনবেন কি কিনবেন না? আপনার সুযোগ থাকে ক্রেতার সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনের মধ্য দিয়ে ক্রেতাকে আপনার পণ্যের ব্যাপারে আকৃষ্ট করে তোলার। কিন্তু অনলাইন জগৎ এক ভিন্ন জগৎ। এখানে কাস্টমার আসবেন আপনার পেইজে ভিজিট করতে। তার সাথে আপনার হয়তো কোনদিন সাক্ষাৎ এ দেখা নাও হতে পারে। কিন্তু আপনার পণ্যই আসলে আপনার হয়ে অনলাইন স্টোরে কথা বলবে। তাই আপনার আকর্ষণীয় প্রোডাক্ট ফটো শুট উপস্থাপনের ব্যাপারটা জরুরী। আর এক্ষেত্রে পণ্যের আকর্ষণীয় ছবি হতে পারে সবচেয়ে শক্তিশালী মাধ্যম। এই লেখাটিতে এমন কিছু বিষয় তুলে ধরা হলো, পণ্যের ছবি তোলার আগে যা বিবেচনা করলে শতভাগ সুন্দর ছবি তোলা সম্ভব।

নির্দিষ্ট সংখ্যক ছবি নির্বাচন করুন

পণ্যের ছবি তোলার সময় সর্বপ্রথম নির্ধারণ করতে হবে প্রদর্শিত ছবির সংখ্যা, অর্থাৎ অনলাইনে আপনি একটি পণ্যের কয়টি করে ছবি প্রদর্শন করতে চান। আপনি যদি বিভিন্ন নিলাম বা চার্জহীন বিক্রয় ওয়েবসাইটগুলো ভিজিট করেন, তবে দেখবেন তারা একটি পণ্যের অনেকগুলি ছবি সংযুক্ত করার সুযোগ রেখেছেন। আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে অসংখ্য পণ্য বিক্রি করতে চান, তবে নিশ্চয়ই ভিন্ন ভিন্ন পণ্যের বিভিন্ন সংখ্যক ছবি দিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাইবেন না! সুতরাং সব পণ্যের জন্য একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক ছবি নির্বাচন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যেমন, হতে পারে আপনি প্রতিটি পণ্যের তিনটি করে ছবি প্রদর্শন করবেন। এই সিদ্ধান্ত নেয়ার পর আপনি কোনো পণ্যের দুইটি বা কোনো পণ্যের চারটি ছবি ব্যবহার করবেন না, একই সংখ্যক ছবি ব্যবহার করবেন।

ব্যাকগ্রাউন্ড কী হলে ভালো হয়?

একটি সাদামাটা এবং পরিষ্কার ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করুন। আপনি ভিন্ন ভিন্ন রং এর ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করে দেখতে পারেন তবে সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডই সবচেয়ে ভালো হবে বলে আমাদের ধারণা। পিছনে কোন সাদা কাগজ কিংবা কাপড় রেখে তার উপরে আপনি আপনার পণ্যের ছবি তুলতে পারেন।

ফোকাস ঠিক করুন

আপনার প্রোডাক্টকে ফোকাস করুন। যদি ক্যামেরা ম্যানুয়াল ফোকাসে থাকে তবে সেটা পরিবর্তন করে অটো ফোকাসে নিন। আপনার পণ্য আউট অফ ফোকাস হয়ে গেলে সেটা খুবই বাজে দেখাবে আপনার সাইটে। আপনি চাইলে খুব কাছ থেকে ম্যাক্রো মোডেও ছবি তুলতে পারেন। তবে আপনি যদি ক্যামেরা এক্সপার্ট না হোন তবে সেটা না করাটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

ফ্ল্যাশ? ব্যবহার করব কি করব না?

ফ্ল্যাশ যথাসম্ভব পরিহার করা উচিত প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে। ফ্ল্যাশ আপনার প্রোডাক্টের স্বাভাবিক রং পরিবর্তন করে দেয়। দিনের আলোয় ছবি তোলাই সবচেয়ে সহজ সমাধান।

গ্রাহকের অনুসন্ধানের বিষয়বস্তু ছবিতে ফুটিয়ে তুলুন

মনে রাখা দরকার, আপনি কোনো পার্টি বা কোনো পারিবারিক অনুষ্ঠানের ছবি তুলছেন না, ছবি তুলছেন আপনার পণ্যের। সুতরাং এক্ষেত্রে আপনাকে ক্রেতার অনুসন্ধানের বিষয়গুলোর দিকে নজর রাখতে হবে। স্বাভাবিকভাবে দোকানে এসে ক্রেতা কোনো পণ্য পছন্দ করার সময় কোন দিকগুলো খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখেন সেই বিষয়গুলো আপনার ছবিতেই স্পষ্ট করে তুলুন। যেমন আপনি কোনো শার্ট, শাড়ি বা অন্য যেকোনো পোশাক বিক্রি করছেন। এখানে আপনার প্রদর্শিত তিনটি ছবির মধ্যে একটি ছবিতে খুব বিস্তারিতভাবে কাপড়ের ছবি তুলুন। কেননা পোশাক কেনার সময় ক্রেতারা কাপড় হাতে ধরে খুব কাছ থেকে দেখার চেষ্টা করেন টেকসই হবে কিনা, কাপড়ের বুনন কেমন ইত্যাদি। সুতরাং অনলাইনে দেখার সময়ও যদি এই বিষয়টি ক্রেতার চোখে স্পষ্ট করে তোলা যায় তাহলে সেই পণ্যটি বিক্রির সম্ভাবনা অনেকাংশে বেড়ে যায়।

কভার করা চাই প্রোডাক্টের সব এঙ্গেল

সব ধরনের এঙ্গেল থেকেই প্রোডাক্টের ছবি তোলার চেষ্টা করুন। এতে করে পরবর্তীতে আপনার জন্য বাছাই করতে সুবিধা হবে। আর কাস্টমারকে সব এঙ্গেলে থেকে ছবি দেখার সুযোগ করে দেওয়াটা অনলাইন বিক্রেতা হিসেবে আপনার দায়িত্ব এটাও মাথায় রাখবেন। ওয়েবসাইটে দেওয়ার জন্যে যেইসব এঙ্গেল থেকে আপনার পণ্য দেখতে আকর্ষণীয় মনে হয় সেই ছবিগুলো নির্বাচন করুন।

হাতের কাছে সুলভ সফটওয়্যার

আপনার প্রোডাক্টের ছবি কোলাজ করতে, ক্রপ করতে, কালার ব্যালেন্স করতে, ইমেজ রিসাইজ করতে আপনি পিকাসা ব্যবহার করতে পারেন।  অথবা অনলাইনে Pixlr এডিটর দিয়েও আপনার ইমেজ এডিট করতে পারেন বিনামূল্যে।

এই ছোটখাট ব্যাপারগুলো মাথায় রেখে আপনি নিজেই পারেন আপনার প্রোডাক্টের আকর্ষণীয় ছবি তুলতে। আজ আপাতত এটুকুই। পরবর্তী কোন পোস্টে আরও বিস্তারিত আলোচনার ইচ্ছা রইল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *